Skip to content

ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান www.eporcha. gov.bd ই-পর্চা

ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান আমরা দুই ভাবে করতে পারি এক হলো অফলাইনে জেলা ভূমি অফিসের কার্যালয় থেকে, দ্বিতীয় হলো ভূমি মন্ত্রণালয়ের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট eporcha.gov.bd এর মাধ্যমে, অফলাইনে ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান করার জন্য তেমন কিছুই প্রয়োজন হয়না অফিসে গিয়ে আপনার ই পর্চা খতিয়ান নাম্বার দিলেই তারা আপনার ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান করে দিবে। আর অনলাইনে eporcha.gov.bd ওয়েবসাইটের মাধ্যমে জমির ই পর্চা খতিয়ান নাম্বার এবং ঠিকানা দিয়ে অনলাইনে ই পর্চা তথ্য অনুসন্ধান করতে পারব।

আরও পড়ুন আর এস খতিয়ান অনুসন্ধান

এবং আপনার যদি একটি ই পর্চা প্রয়োজন হয় তাহলে আপনি এখান থেকে ই পর্চা খতিয়ান অনলাইন কপি অথবা অরিজিনাল কপি নিতে পারবেন। ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান অনলাইনে কিভাবে করতে হয় এবং অনলাইন কপি কিংবা অরিজিনাল কপি কিভাবে ডাউনলোড করতে হয় সেটাই আজকে আপনাদের দেখানো হবে। 

চলোন প্রথমেই দেখে নেওয়া যাক অনলাইন ই পর্চা অনুসন্ধান করার জন্য আপনার কি কি তথ্য কিংবা ডকুমেন্ট প্রয়োজন হবে। 

ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান করতে ডকুমেন্ট

ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান করার জন্য প্রথমেই প্রয়োজন হবে আপনার ই পর্চা খতিয়ান নাম্বার, মালিকানা নাম অথবা দাগ নাম্বার। এই তিনটি তথ্য থাকলেই আপনি ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান করতে পারবেন, তবে এই তিনটি তথ্যের মধ্যে যেকোন একটি তথ্য থাকলেই ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান করা যায়। যেমন আপনার যদি শুধু মাত্র জমির মালিকানা নাম জানা থাকে তাহলেই আপনি ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান করতে পারবেন, এর জন্য আপনার বাকী দুটি তথ্য অর্থাৎ দাগ নাম্বার এবং ই পর্চা খতিয়ান নাম্বার প্রয়োজন হবেনা। ঠিক এই রকম ভাবে আপনার কাছে যেকোন একটি তথ্য থাকলেই হবে। 

আরও পড়ুন জমির খতিয়ান ডাউনলোড করার নিয়ম

তারপর প্রয়োজন হবে ঠিকানা, এখানে ঠিকানা বলতে আপনার ঠিকানা বুজানো হয়নি, ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান করার জন্য আপনি যেই জমির ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান করবেন সেই জমির ঠিকানা প্রয়োজন হবে, যেমন আপনি যদি থাকেন ঢাকাতে কিন্তু আপনার জমি আছে সিলেটে তাহলে আপনাকে অবশ্যই সিলেটের তথ্য প্রধান করতে হবে। 

প্রয়োজনীয় তথ্যঃ

জমির ঠিকানা অর্থাৎ বিভাগ, জেলা, উপজেলা, মৌজা। 

খতিয়ানের ধরন। 

ই পর্চা খতিয়ান নাম্বার, মালিকানা নাম, দাগ নাম্বার (যেকোন একটি)

ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান করার নিয়ম 

ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান করার জন্য eporcha.gov.bd ওয়েবসাইটে যান, সেখানে আপনার জমির স্থানের সঠিক ঠিকানা নির্বাচন করুন, খতিয়ানের ধরন নির্বাচন করুন, আবং মালিকানা নাম, ই পর্চা নাম্বার অথবা দাগ নাম্বার বসিয়ে সাবমিট করুন। 

পার্ট ১ – ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান

https://www.eporcha.gov.bd এই লিংক থেকে ভূমি অফিসের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন, প্রবেশ করার জন্য আপনার মোবাইলের যেকোন একটি ব্রাউজারে গিয়ে এই লিংক এখান থেকে কপি করে আপনার ব্রাউজারে পেস্ট করুন। তাহলেই আপনাকে ই পর্চা ভূমি মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে নিয়ে যাবে, ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পর প্রথমেই আপনাকে মেনু নির্বাচন করতে হবে, ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান করার জন্য দুটি মেনু রয়েছে একটি হলো নামজারি খতিয়ান, আরেকটি হলো সার্ভে খতিয়ান।

আপনি যদি নামজারি পর্চা অনুসন্ধান করতে চান তাহলে নামজারি খতিয়ান মেনুতে ক্লিক করুন, এবং সার্ভে খতিয়ান অর্থাৎ আর এস খতিয়ান, সি এস খতিয়ান, বি আর এস খতিয়ান এই ই পর্চা গুলো অনুসন্ধান করার জন্য সার্ভে খতিয়ান মেনুতে ক্লিক করুন। 

পার্ট ২ – ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান

মানু নির্বাচন করার পর আপনার ঠিকানা বাছাই করতে হবে, ঠিকানা বাছাই করার জন্য আপনার বিভাগের নামের উপর ক্লিক করুন, বিভাগের নামের উপরে ক্লিক করলেই জেলা লিস্ট দেখানো হবে সেখান থেকে আপনার জমির জেলা নির্বাচন করুন, এবং জেলা নির্বাচন করার পর উপজেলা লিস্ট দেখানো হবে সেখান থেকে আপনার উপজেলা নির্বাচন করুন।

তারপর আপনার খতিয়ানটি কোন ধরনের তা নির্বাচন করুন যেমন আর এস খতিয়ান, বি এস খতিয়ান। তু আপনার ই পর্চা খতিয়ানটি যেই ধরনের আপনি সেটা নির্বাচন করুন। তারপর আপনার জমি কোন মৌজা বা গ্রামে সেটা নির্বাচন করুন। 

পার্ট ৩ – ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান

তারপর খতিয়ানের তালিকা অপশনে আপনার ই পর্চা খতিয়ান নাম্বার বসিয়ে খুঁজুন বাটনে ক্লিক করুন তাহলেই আপনার ই পর্চা খতিয়ানের তথ্য দেখতে পারবেন। তবে আপনার কাছে যদি ই পর্চা খতিয়ান নাম্বার না থাকে তাহলে একটু নিচে দেখুন অধিকতর অনুসন্ধান নামে একটি বাটনে আছে, সেটায় ক্লিক করলেই দেখতে পারবেন মালিকানা নাম এবং দাগ নাম্বার বসানোর জন্য একটি অপশন ওপেন হয়েছে সেখানে আপনার ই পর্চা খতিয়ানের মালিকানা নাম অথবা দাগ নাম্বার যেকোন একটি বসিয়ে খুঁজুন বাটনে ক্লিক করলেই আপনার ই পর্চা খতিয়ানের তথ্য দেখতে পারবেন। 

এই পর্যন্ত ছিল ই পর্চা খতিয়ান অনুসন্ধান করার পুর পক্রিয়া। 

ই পর্চা খতিয়ান ডাউনলোড

ই পর্চা খতিয়ান ডাউনলোড করার জন্য আপনার আরও কিছু তথ্যের প্রয়োজন হবে, সেগুলো দিয়ে আপনি খতিয়ান আবেদন সম্পন্ন করবেন এবং ১০০ টাকা ফী দিয়ে ই পর্চা অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে পারবেন এবং ১৪০ টাকা দিয়ে জমির অরিজিনাল কপি ডাউনলোড করতে পারবনে। কিভাবে ই পর্চা খতিয়ান ডাউনলোড করার জন্য আবেদন করতে হয় এবং ১০০-১৪০ টাকা ফী দিয়ে কিভাবে ডাউনলোড করতে হয় এবং কিভাবে অরিজিনাল কপি হোম ডেলিভারি পেতে পারেন সবকিছু একসাথে জানতে পারবেন। খতিয়ান ডাউনলোড করার বিস্তারিত নিয়ম জানতে এখানে ক্লিক করুন।